শরণখোলায়  ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ফার্মেসিকে আড়াই লাখ টাকা জরিমানা


শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি প্রকাশের সময় : মে ২৯, ২০২২, ৯:৪০ অপরাহ্ণ / Print This Post Print This Post
শরণখোলায়  ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ফার্মেসিকে আড়াই লাখ টাকা জরিমানা

শরণখোলায় রবিবার (২৯ মে) দিনব্যপী বিভিন্ন ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় দুইটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার, দুইটি ডেন্টাল ক্লিনিক ও দুইটি ফার্মেসিকে দুই লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া আমড়াগাছিয়া বাজারে অনুমোদনহীন একটি ক্লিনিক ও একটি ফার্মেসী সিলগালা করে দেয়া হয়েছে।
রবিবার শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নুর ই আলম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে সকাল ১০টা থেকে রাত ৭টা পর্যন্ত উপজেলা সদর রায়েন্দা বাজার, আমড়াগাছিয়া বাজার ও তাফালবাড়ী বাজারের প্রায় ২০টি ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ফার্মেসিতে এ অভিযান পরিচালিত হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ প্রিয় গোপাল বিশ্বাস ও আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ ফয়সাল আহম্মেদ ভ্রাম্যমাণ আদালতকে সহায়তা করেন।
ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা যায়, রায়েন্দা বাজারের পদ্মা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসক না থাকায় ৫০ হাজার টাকা, মদিনা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক মোঃ আসলাম জোমাদ্দারকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া ডেন্টাল ক্লিনিকের পরিচয়ে পাইলস, পলিপাস চিকিৎসা করার অভিযোগে মুক্তা ডেন্টাল ক্লিনিকের মালিক আবু সালেহ আহম্মেদকে ৩০ হাজার এবং হাসি ডেন্টাল ক্লিনিকের মালিক মোঃ নাসির উদ্দিনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। উপজেলার আমড়াগাছিয়া বাজারে ভুয়া চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে রোগী দেখার অভিযোগে হালিম ফার্মেসির মালিক মোঃ মাইনুল ইসলামকে ৫০ হাজার ও আলামিন ফার্মেসির মালিক মোঃ আমির হোসেনকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং জনতা ফার্মেসি সিলগালা করে দেয়া হয়। এছাড়া অভিযানের সময় আমড়াগাছিয়া সাতঘর গ্রামের মধ্যে অনুমোদনহীন বেগম রোকেয়া নামের একটি ক্লিনিকের মালিক মোঃ সগির হোসেন পালিয়ে গেলে ক্লিনিকটি সিলগালা করে দেয়া হয়েছে। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 


আর্কাইভ

%d bloggers like this: